বাংলা ফন্ট

'বিচার বিভাগের ইতিহাসে এটি বড় সার্থকতা'

10-10-2018
নিজস্ব প্রতিবেদক ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম

 'বিচার বিভাগের ইতিহাসে এটি বড় সার্থকতা'

ঢাকা: ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়ের পর অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেছেন, বাংলাদেশের বিচারের ইতিহাসে আজকে একটি মাইলফলক সূচিত হলো। এই রায় বাংলাদেশের ইতিহাসে ও বিচার বিভাগের ইতিহাসে একটি বড় সার্থকতা।

বুধবার পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে স্থাপিত ঢাকার এক নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক শাহেদ নূর উদ্দিনের আদালত মামলার রায় ঘোষণা করেন। রায়ে ১৯ জনকে মৃত্যুদণ্ড, ১৯ জনকে যাবজ্জীবন এবং আরও ১১ জন আসামিকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেয়া হয়।

বুধবার সুপ্রিমকোর্টে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এই প্রতিক্রিয়া জানান।

মাহবুবে আলম বলেন, বাংলাদেশের বিচারের ইতিহাসে আজকে একটি মাইলফলক সূচিত হলো। এই মামলাটিকে নষ্ট করে দেয়ার জন্য নানারকম ষড়যন্ত্র করা হয়েছিল। জজমিয়া নামের এক নিরপরাধ লোককে সাজানো হয়েছিল আসামি, সে পর্যায় থেকে মামলাটি আলোর মুখ দেখেছে এবং অপরাধীরা সাজা পেয়েছে। এটা বাংলাদেশের ইতিহাসে ও বিচার বিভাগের ইতিহাসে একটি বড় সার্থকতা।

তিনি বলেন, আমাদের উপমহাদেশে জালিয়াওয়ালাবাগে এ ধরনের হত্যাকাণ্ড হয়েছিল। মানুষকে আবদ্ধ রেখে গুলি করা হয়েছিল। এটা (২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা) অনেকটা সে রকমই। একটা জায়গায় বক্তৃতা হচ্ছিল, এর চারদিক থেকে গ্রেনেড নিক্ষেপ করা হলো। কোনোভাবেই বলা যাবে না, এটা সাধারণ সন্ত্রাসীদের কাজ।

তিনি আরও বলেন, এটা অবশ্যই রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত এবং রাজনৈতিক উদ্দেশ্যেই শেখ হাসিনাকে ও তার দলের অন্যান্য নেতাকর্মীকে নিশ্চিহ্ন করে দেয়ার জন্যই এই ষড়যন্ত্র করা হয়েছিল এবং হত্যাকাণ্ড পরিচালনা করা হয়েছিল।

রায়ে স্বস্তি প্রকাশ করে মাহবুবে আলম বলেন, বিচার যেটা হয়েছে, তাতে প্রাথমিকভাবে আমি স্বস্তি অনুভব করছি। তবে রায় দেখার পরে যদি মনে করি যে, কোনো আসামির ফাঁসি হওয়া উচিত ছিল, কিন্তু তাকে ফাঁসি দেয়া হয়নি, সেক্ষেত্রে আমরা আপিল করব।

ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম/এইএমএল

সর্বশেষ সংবাদ