বাংলা ফন্ট

বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে গায়েবি মামলা তদন্ত চেয়ে রিট

23-09-2018
নিজস্ব প্রতিবেদক ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম

 বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে গায়েবি মামলা তদন্ত চেয়ে রিট

ঢাকা: চলতি সেপ্টেম্বর মাসে দেশব্যাপী বিএনপিসহ বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত ‘গায়েবি’ মামলার তদন্তে একটি ‘স্বাধীন তদন্ত কমিটি’ গঠনের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট আবেদন দায়ের করা হয়েছে। জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশন, এশিয়ান হিউম্যান রাইটস ওয়াচ, অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এর একজন করে প্রতিনিধি, অতিরিক্ত আইজিপি মর্যাদার একজন পুলিশ কর্মকর্তাকে ওই তদন্ত কমিটিতে অন্তর্ভূক্তির জন্য আদালতের নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।
 
রিটে বলা হয়েছে, পহেলা সেপ্টেম্বর থেকে ২০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন থানায় বিএনপিসহ বিরোধী রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে ৩ হাজার ৭৩৬টি মামলা দায়ের করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এসব মামলায় আসামি করা হয়েছে ৩ লাখ ১৩ হাজার ১৩০ জনকে। আর অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়েছে কয়েক হাজার।দায়েরকৃত এসব মামলাকে ‘গায়েবি’ উল্লেখ করে তা তদন্তের নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।
 
আগামীকাল সোমবার বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি আহমেদ সোহেলের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে শুনানি হতে পারে। রিটে আবেদনকারী হিসেবে রয়েছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সিনিয়র আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন ও নিতাই রায় চৌধুরী এবং দলটির আইন বিষয়ক সম্পাদক সানাউল্লাহ মিয়া। আজ সোমবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ আবেদনটি দাখিল করেন আইনজীবী মো. মাসুদ রানা।
 
পরে অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে সারাদেশে ঢালাওভাবে এ ধরনের কল্পিত মামলা করা হচ্ছে। এর উদ্দেশ্য হচ্ছে চাপে রেখে বিরোধী নেতাকর্মীদের মধ্যে ভীতি সঞ্চার করা। এ ধরনের মামলা সঠিক হয়েছে কিনা তা তদন্ত করতে কমিশন গঠনের নির্দেশনা চেয়েছি।
 
রিটে বলা হয়, সম্প্রতি বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে কয়েক হাজার মামলা করা হয়েছে। এসব মামলা নিয়ে বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকে একাধিক প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। রিট আবেদনে প্রকাশিত এসব প্রতিবেদন যুক্ত করা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, এসব মামলায় বিপুল সংখ্যক আসামিদের মধ্যে অনেকেই মৃত। আবার কেউ বিদেশে আছেন। আবার ঘটনা সংঘটিত না হলেও এজাহার দায়ের করা হয়েছে। ফলে এসব মামলা করা হয়েছে হয়রানি করার জন্যই। রিটে এসব ‘গায়েবি’ মামলা করা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না এবং মামলা দায়েরকারী কর্মকর্তাদের বির“দ্ধে ব্যবস্থা নিতে বিবাদীদের কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না তা জানতে র“ল চাওয়া হয়েছে। স্বরাষ্ট্র সচিব, পুলিশের আইজি, ডিএমপি কমিশনারসহ নয়জনকে বিবাদী করা হয়েছে রিটে।

ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম/এইএমএল


সর্বশেষ সংবাদ