বাংলা ফন্ট

পতুর্গাল ও স্পেনে দাবানলে নিহত ৩৯

17-10-2017
নিজস্ব প্রতিবেদক ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম

  পতুর্গাল ও স্পেনে দাবানলে নিহত ৩৯
লিসবন, মাদ্রিদ: পর্তুগাল ও স্পেনে দাবানলের ঘটনায় অন্তত ৩৯ জন নিহত হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। দেশ দুটির কতৃপক্ষ এ তথ্য জানিয়েছে।

পর্তুগালের উত্তর ও মধ্যাঞ্চলীয় বনে দাবানলে ২৪ ঘণ্টায় কমপক্ষে ৩৬ জন ও স্পেনে তিনজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরো অনেকে।

পর্তুগালের প্রধানমন্ত্রী অ্যান্টোনিও কোস্তা দেশটিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন। দাবানল কবলিত ১৫০টি এলাকায় কমপক্ষে ৪,০০০ অগ্নিনির্বাপক কর্মী আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে।

পর্তুগালের উত্তরাঞ্চলে ও স্পেনের গ্যালিসিয়া অঞ্চলের সীমান্তজুড়ে দাবানল ছড়িয়ে পড়েছে।

ইউরোপের পশ্চিম উপকূলের দিকে এগিয়ে আসা হারিকেন ওফেলিয়ার কারণে পরিস্থিতি আরো নাজুক হয়েছে। হারিকেনের প্রবল বাতাসের কারণে আগুন আরো জোরালো হয়ে চারদিকে ছড়িয়ে পড়েছে।

পর্তুগাল ন্যাশনাল অথরিটি ফর সিভিল প্রটেকশন (এএনপিসি) মুখপাত্র প্যাট্রিসিয়া গ্যাসপার জানিয়েছেন, পর্তুগালের কমপক্ষে ৬৩ জন ব্যক্তি আহত হয়েছে। এর মধ্যে গুরুতর অবস্থায় রয়েছে ১৬ জন। গুরুতর আহতদের মধ্যে একজন অগ্নিনির্বাপক কর্মী। অনেক লোক এখনো নিখোঁজ রয়েছে।

ইউরোপের পশ্চিম উপকূলের দিকে এগিয়ে আসা হারিকেন ওফেলিয়ার কারণে পরিস্থিতি আরো নাজুক হয়েছে। হারিকেনের প্রবল বাতাসের কারণে আগুন আরো জোরালো হয়ে চারদিকে ছড়িয়ে পড়েছে।

পর্তুগালের কোয়িমব্রা, গুয়ার্দা, ক্যাস্টেলো ব্রানকা এবং ভিসেউ এলাকায়ই অধিকাংশ মানুষের মৃত্যুর ঘটনাগুলো ঘটেছে।

স্পেনে নিহতদের মধ্যে দুজনের লাশ রাস্তার পাশে পুড়ে যাওয়া একটি গাড়িতে পাওয়া গেছে।

সোমবার বিকেলে স্পেনের প্রধানমন্ত্রী মারিয়ানো রাখয় গালিসার পন্তেভেদরা এলাকায় গিয়ে জরুরি বিভাগের কর্মীদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন।

পরে এক সংবাদ সম্মেলনে দাবানলের ঘটনাগুলোকে ‘নাশকতা’ বলে দাবি করেছেন রাখয়।

তিনি বলেন, ‘এখানে আমরা যার সঙ্গে লড়ছি তা কোনো দুর্ঘটনার কারণে ঘটেনি, এগুলো সচেতনভাবে ঘটানো হয়েছে। এখানে পাসোস দ্য বর্দেনে বড় ধরনের একটি আগুন জ্বলছে, যা আজ সকালে (সোমবার মধ্যরাতে) ১টা ৩০ মিনিটে পাঁচটি আলাদা জায়গায় শুরু হয়েছে। প্রাকৃতিকভাবে এভাবে আগুন লাগার ঘটনা অসম্ভব।’

অগ্নিসংযোগকারীরা এসব আগুন লাগিয়েছে অভিযোগ করে গালিসার নেতা আলবার্তো নুনেজ ফেইজো ঘটনাটিকে ‘সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ’ বলে দাবি করেছেন।

এর আগে স্পেনের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হুয়ান ইগনাসিও জোইদো জানিয়েছেন, ইতোমধ্যে আগুন লাগানোর ঘটনার সঙ্গে জড়িত বেশ কয়েকজনকে শনাক্ত করা হয়েছে।

চলতি বছরের জুনে পর্তুগালে বড় ধরনের আরেকটি দাবানলের ঘটনায় ৬৪ জন নিহত ও ১৩০ জনেরও বেশি মানুষ আহত হয়েছিল।

ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম/এইএমএল


সর্বশেষ সংবাদ