বাংলা ফন্ট

উ. কোরিয়াকে ধ্বংস করে দেয়ার হুমকি ট্রাম্পের

20-09-2017
নিজস্ব প্রতিবেদক ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম

 উ. কোরিয়াকে ধ্বংস করে দেয়ার হুমকি ট্রাম্পের

নিউইয়র্ক: উত্তর কোরিয়াকে পুরোপুরি ধ্বংস করে দেয়ার হুমকি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ৭২তম অধিবেশনে বিশ্বনেতাদের উপস্থিতিতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে তার প্রথম ভাষণে মঙ্গলবার এ হুমকি ডোনাল্ড ট্রাম্প। উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে এটিই ট্রাম্পের সোজাসাপটা ভাষায় প্রথম হামলার হুমকি।

পরিষ্কার ভাষায় ট্রাম্প বলেছেন, পরমাণু হুমকির মাধ্যমে পিয়ংইয়ং যদি যুক্তরাষ্ট্রের নিজের ও তার মিত্রদের রক্ষায় বাধ্য করে, তাহলে উত্তর কোরিয়াকে সম্পূর্ণ নিশ্চিহ্ন করে দেয়া হবে।

উত্তর কোরিয়ার হুমকিকে প্রধান্য দিয়ে বিশ্বনেতাদের উদ্দেশে ট্রাম্প বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের মহান শক্তি ও ধৈর্য আছে কিন্তু তারা যদি আমাদের ও আমাদের মিত্রদের রক্ষায় পদক্ষেপ নিতে বাধ্য করে, তাহলে উত্তর কোরিয়াকে পুরোপুরি ধ্বংস করা ছাড়া আর কোনো গতি থাকবে না।’

কিম জং উনের উদ্দেশে ট্রাম্প বলেন, ‘রকেট ম্যান নিজেকে এবং নিজের দেশকে আত্মঘাতী অভিযানের দিকে পরিচালিত করছেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র প্রস্তুত, ইচ্ছুক এবং সক্ষম। তবে আশা করি এর প্রয়োজন হবে না।’

ট্রাম্প জাতিসংঘে তার ভাষণে উত্তর কোরিয়ার পাশাপাশি ইরানকেও আক্রমণ করেন। ২০১৫ সালে ইরান ও বিশ্বের ছয় ক্ষমতাধর রাষ্ট্রের মধ্যে স্বাক্ষরিত পারমাণবিক চুক্তির প্রসঙ্গ টেনে ট্রাম্প বলেন, ওই চুক্তি মধ্যপ্রাচ্যের সংঘর্ষে ইরানের ধ্বংসাত্মক ভূমিকার লাগাম টেনে ধরতে ব্যর্থ হয়েছে।

ট্রাম্প বলেন, ‘আমরা এমন খুনে শাসনব্যবস্থাকে অস্থিতিশীল কর্মকাণ্ড চালিয়ে যেতে দিতে পারি না, যখন তারা ভয়ংকর ক্ষেপণাস্ত্র তৈরির কাজ চালিয়ে যায়। সত্যি বলতে কি, এই চুক্তি যুক্তরাষ্ট্রের জন্য লজ্জার।’

ট্রাম্প আরো বলেন, ‘বিশ্বাস করুন। এখন পুরো বিশ্বের আমাদের সঙ্গে যোগ দেয়ার সময়। ইরানকে তাদের ধ্বংসযজ্ঞ শেষ করতে হবে।’

ট্রাম্পের এই ভাষণের মধ্য দিয়ে ২০১৫ সালে সম্পাদিত পরমাণু সমঝোতায় শেষ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্র থাকবে কি না, তা নিয়ে সন্দেহ সৃষ্টি হয়েছে। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রচারের সময়ে এ সমঝোতা থেকে বের হয়ে আসবেন বলে একাধিকবার ঘোষণাও করেছিলেন ট্রাম্প।

ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম/এইচএমএল






সর্বশেষ সংবাদ