বাংলা ফন্ট

গাজার সংঘর্ষ থামাতে উদ্যোগ নিচ্ছে জাতিসংঘ ও মিশর

29-07-2018
নিজস্ব প্রতিবেদক ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম

 গাজার সংঘর্ষ থামাতে উদ্যোগ নিচ্ছে জাতিসংঘ ও মিশর
গাজা: অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় উত্তেজনা প্রশমনে জাতিসংঘ এবং মিশর উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। গাজা চুক্তির অগ্রগতির জন্য সব পক্ষের ওপর ব্যাপক চাপ প্রয়োগ করছে বলে কূটনৈতিক সূত্রের বরাতে শনিবার জেরুজালেম পোস্টের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

সূত্র জানায়, চুক্তির বিষয়ে আলোচনা এগিয়ে চলছে কিন্তু ইসরাইল এবং হামাসের মধ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠা না হলে কোনো ফলই আসবে না। এছাড়াও ফাতাহ এবং হামাসের মধ্যে একটি সমঝোতা চুক্তি রয়েছে।

সূত্রের বরাতে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘এটি একটি অভূতপূর্ব উদ্যোগ কিন্তু তা সফল হয় কিনা সেটাই দেখার বিষয়। কেননা এটি একটি উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ কাজ।’

গাজায় ইসরাইলি সেনারা হামাসের সঙ্গে যুদ্ধবিরতি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। হামাস ও ইসরাইলের মধ্যে শান্তি আলোচনা পুনরায় শুরু করার কথা রয়েছে।

সূত্র বলছে, গাজা চুক্তির তাৎপর্যপূর্ণ অগ্রগতির জন্য এতে জাতিসংঘ, মিশর, ইসরাইল, ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ ও হামাসকে অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

এই উদ্যোগে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকেও অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে। একটি যুদ্ধবিরতি কার্যকর; গাজার অবকাঠামো পুনর্নির্মাণ; ফাতাহ ও হামাসের পুনর্মিলন এবং হামাস শাসনের ১১ বছর পরে গাজা উপত্যকায় ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের প্রত্যাবর্তনে যুক্তরাষ্ট্রকে জড়িত করা হবে।

সূত্র জানায়, ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু তার মন্ত্রীদের সঙ্গে একটি গোপন বৈঠকে বলেছেন, গাজায় ইসরাইলি দখলদারিত্বের বিরুদ্ধে কূটনৈতিক পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

বিশ্লেষকেরা বলছেন, ইসরাইল- হামাস সংঘর্ষ বন্ধ না হলে এবং গাজায় ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা না হলে এই ধরনের চুক্তিতে খুব বেশি ফল আসবে না। যেসব আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় গাজার পুনর্বাসনে আর্থিকভাবে সহায়তা করতে চায় তাদের জন্য এটি বিশেষভাবে গুরুত্বপূর্ণ।

মধ্যপ্রাচ্য শান্তি প্রক্রিয়া নিয়ে জাতিসংঘের বিশেষ সমন্বয়কারী নিকোলাই ম্লাদনাভ বৃহস্পতিবার রাতে এক টুইটে বলেন, ‘উত্তেজনা এড়াতে, সকল মানবিক সমস্যা সমাধান করতে এবং বিবদমান দলগুলোর পুনর্মিলনে সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলো কঠোর পরিশ্রম করছে।’

পিএলও নির্বাহী কমিটির মহাসচিব সায়েব ইরাকাত বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের বলেন, গাজা চুক্তির ব্যাপারে মিশর কঠোর পরিশ্রম করছে এবং তাদের প্রচেষ্টা খুবই আন্তরিক।

ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম/এইএমএল



সর্বশেষ সংবাদ