বাংলা ফন্ট

ইরানের সরকার পরিবর্তনের পক্ষে যুক্তরাষ্ট্র!

23-05-2018
নিজস্ব প্রতিবেদক ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম

 ইরানের সরকার পরিবর্তনের পক্ষে যুক্তরাষ্ট্র!

ঢাকা: ইরানে সরকার পরিবর্তনের পক্ষে যুক্তরাষ্ট্র ।  মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওসহ অন্যান্য কর্মকর্তাদের এ বিষয়ক সাম্প্রতিক কয়েকটি মন্তব্য বিবেচনা করে এমনটা জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি।
 
পম্পেওকে উদ্ধৃত করে খবরে বলা হয়, ইরানের জনগণের নিজেদের পছন্দের নেতৃত্ব বেছে নেয়ার অধিকার রয়েছে। মঙ্গলবার এক ভাষণে এমন কথা বলেন তিনি।  সাম্প্রতিক সময়ে এরকম আরো মন্তব্য করেছেন পম্পেও। বিশেষজ্ঞরা ভাবছেন এসব মন্তব্য ইরানে সরকার পরিবর্তনের কৌশলের অংশ।
 
তবে এমন সম্ভাবনার কথা প্রত্যাখ্যান করেছেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র হেদার নুয়ার্ট। তিনি বলেন, কোন দেশের সরকারকে পরিবর্তন করা মার্কিন নীতি নয়। কিন্তু তিনি জানান, সরকার পরিবর্তন হলে নতুন সরকারকে স্বাদরে গ্রহণ করে নেবে যুক্তরাষ্ট্র।
 
তিনি বলেন,  কিন্তু আমরা একথা পরিষ্কারভাবে জানাতে চাই যে তেহরানে নতুন সরকারের যুগ শুরু হলে যুক্তরাষ্ট্র তাকে স্বাদরে আমন্ত্রণ জানাবে। ইরানের জনগণ যদি কখনো তাদের ইচ্ছার কথা প্রকাশ করতে চায়, তারা করতে পারে। তারা বহুদিন ধরে এমন একটি সরকারের অধীনে রয়েছে যে সরকার নিজ জনগণের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করে থাকে।
 
প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইতিমধ্যে ইরানের সঙ্গে পারমাণবিক চুক্তি ছিন্ন করে দেশটিতে সরকার পরিবর্তনের সম্ভাবনা উস্কে দিয়েছেন। ট্রাম্পের ব্যক্তিগত আইনজীবী রুডি জিউলিয়ানি ইরানের নির্বাসিত বিরোধীদলীয় ব্যক্তিদের বলেছেন, আমাদের প্রেসিডেন্ট আমাদের মতোই সরকার পরিবর্তনে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।
 
সম্প্রতি ট্রাম্প তার ঘনিষ্ঠ কর্মকর্তা হিসেবে বেশ কয়েকজন কট্টরপন্থী ব্যক্তিদের নিয়োগ দিয়েছেন। এর মধ্যে রয়েছেন, জাতীয় নিরাপত্তা বিষয়ক উপদেষ্টা জন বল্টন ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও। উভয়েই পূর্বে সরকার পরিবর্তনের পক্ষে কথা বলেছেন।
 
সম্প্রতি পম্পেও বলেন, আমি নিশ্চিত, ইরানের জনগণ যখন তাদের সামনে কোন পথ দেখতে পাবে, যে পথ দিয়ে সামনে এগিয়ে গেলে তাদের দেশ এমন আচরণ বন্ধ করবে, তারা সে পথ বেছে নেবে।

ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম/এইএমএল


সর্বশেষ সংবাদ