বাংলা ফন্ট

দুই স্বর্ণকেশীর পাশে হাস্যোজ্জ্বল ট্রাম্প, ফের কানাঘুষা

19-02-2018
নিজস্ব প্রতিবেদক ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম

  দুই স্বর্ণকেশীর পাশে হাস্যোজ্জ্বল ট্রাম্প, ফের কানাঘুষা
ওয়াশিংটন: দুই স্বর্ণকেশী সুন্দরীর মাঝে দাঁড়িয়ে হাস্যোজ্জ্বল ভঙ্গিতে ক্যামেরার সামনে নিজের বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন করছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। কিন্তু এতে অনুপস্থিত ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া। এ নিয়ে ফের শুরু হয়েছে কানাঘুষা। তবে কি আবারো মনোমালিন্য চলছে এই দম্পতির মাঝে- এই প্রশ্ন অনেকের।

শনিবার রাতে ফ্লোরিডার পাম বিচে তার ‘মার-এ-লাগো’ রিসোর্ট পরিদর্শনের সময় এই ছবির ট্রাম্প ক্যামেরার সামনে দাঁড়ান।

ফার্স্ট লেডি মেলানিয়াকে আপাতদৃষ্টিতে সেখানে দেখা যায়নি, অনন্ত ছবি তোলার সময়ে। বিয়ের সময় ট্রাম্পের আরেকটি সম্পর্ক ছিল-এমন কানাঘুষার মধ্যেই দুই স্বর্ণকেশী সুন্দরীর সঙ্গে ট্রাম্পের এই ছবি সামাজিক মাধ্যমে প্রকাশ পেয়েছে। এইবার সাবেক প্লেবয় প্লেমেট কারেন ম্যাকদোগালকে নিয়ে।

ইনস্টাগ্রামে একজন নারীর ছবিসহ পোস্ট করা তথ্যানুযায়ী, শনিবারের ওই আয়োজনটি ছিল অনাথ শিশুদের জন্য তহবিল সংগ্রহের একটি অনুষ্ঠান।

‘অরফান প্রমিজ চ্যারিটি’ নামের এই সংগঠনটি অনাথ ছেলেমেয়েদের সেবায় কাজ করে থাকে। সংগঠনটি অনাথদের পাশাপাশি তাদের পরিবারের জন্যও সুযোগ তৈরি করে দেয়।

মারজোরি স্টোনম্যান ডগলাস হাই স্কুলে হামলার শিকারদের ও তাদের পরিবারের সদস্যদের সমবেদনা জানাতে শুক্রবার ফ্লোরিডার একটি হাসপাতাল পরিদর্শনে যান প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। এসময় প্রেসিডেন্টের আনন্দময় হাস্যজ্জ্বল চেহারা সবার নজর কাড়ে।

শুক্রবার রাতে ট্রাম্প তার টুইটার পেজে হাসপাতাল পরিদর্শনের ছবি পোস্ট করেন এবং সাম্প্রতিকতম এই ট্র্যাজেডি সম্পর্কে একটি বার্তা পোস্ট করেন।

সামাজিক মিডিয়াতে তিনি লিখেছিন, ‘আমাদের সমগ্র জাতি ভিকটিম ও তাদের পরিবারের জন্য প্রার্থনা করছে। শিক্ষক, আইন প্রয়োগকারী সংস্থা, প্রথম সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেয়া মানুষ ও চিকিত্সক যারা বিপদের মুখোমুখি সাহসীভাবে সাড়া দিয়েছেন: আপনাদের সাহসের জন্য আমরা আপনাদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি!’

হাসপাতাল পরিদর্শনের সময়েও ডাক্তার, নার্স, হামলার শিকার এবং স্ত্রী মেলানিয়ার সঙ্গে পাশাপাশি দাঁড়িয়ে ছবি তোলার সময়েও ট্রাম্পকে তার বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন করতে দেখা গেছে।

হাসপাতালের ডাক্তার, নার্সদের সম্পর্কে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘তারা যে কাজ করেছে তা অবিশ্বাস্য এবং আমি তাদেরকে অভিনন্দন জানাচ্ছি।’

তিনি আরো বলেন, ‘এটা অত্যন্ত দুঃখজনক ঘটনা। কিন্তু ডাক্তার, নার্স, হাসপাতাল, আইন প্রয়োগকারী সদস্যরা যা করেছেন তা সত্যিই অবিশ্বাস্য।’

যখন একজন সাংবাদিক ট্রাম্পকে প্রশ্ন করেন যে তিনি আমেরিকার বন্দুক নীতি পরিবর্তন প্রয়োজন কিনা জানতে চাইলে তিনি কোনো জবাব না দিয়ে হাঁটতে শুরু করেন।

মেইল অনলাইন অবলম্বনে

ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম/এইএমএল




সর্বশেষ সংবাদ