বাংলা ফন্ট

জনতা ব্যাংক নিয়ে অতি প্রচারণায় বাড়ছে ক্ষতির সম্ভাবনা

08-10-2018
নিজস্ব প্রতিবেদক ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম

 জনতা ব্যাংক নিয়ে অতি প্রচারণায় বাড়ছে ক্ষতির সম্ভাবনা

ঢাকা: বাংলাদেশের ব্যাংকিং ইতিহাসে সবচেয়ে বড় ভুল সিদ্ধান্ত যদি কিছু হয়ে থাকে সেটি ছিল হলমার্ক সম্পর্কে কঠোর অবস্থান। আজ তা সূর্যের আলোর মতোই স্পষ্ট। তখন হলমার্কের যে সম্পদ ও ব্যবস্থাপনা ছিলো তা যদি সরকারিভাবে নজরদারিতে রেখে উৎপাদন সচল রাখা হতো তাহলে হাজার হাজার মানুষ যেমন কর্মহীন হতো না তেমনি সোনালী ব্যাংকও হারাতো না হাজার হাজার কোটি টাকার মূলধন। আর্থিক খাতটি এমনই যে একবার কিছু ভুল হয়ে গেলে তা শোধরানোর জন্য মিলিটারি আইন চলেনা। ঋণের দায়ে একটি উৎপাদন মুখর প্রতিষ্ঠানকে ব্যাংক মামলা করে বন্ধ করে দিতে পারে। কিন্তু টাকা ফিরিয়ে আনার সম্ভাবনাটিও সেই সাথে মারা যায়। হলমার্কের ব্যাপারে মিডিয়ার অতি প্রচারণার ব্যাপারটি তৎকালীন সময়ের অর্থ-প্রশাসন এবং সোনালী ব্যাংককে ব্যাপক প্রভাবিত করেছিল। এই মিডিয়া আক্রান্ত সিদ্ধান্ত কি আখেরে আদৌ কোন সুফল নিয়ে এসেছিল? সোনালী ব্যাংকের প্রশাসন হয়তো অতি ভালো সাজার জন্য তখন মিডিয়ার সামনে খুব কড়া কড়া পদক্ষেপের সংবাদ প্রদান করেছে কিন্তু ক্ষতি হয়েছে সোনালী ব্যাংকের অর্থের, উঠতি সেই প্রতিষ্ঠান হলমার্কের এবং হাজার হাজার কর্মজীবী মানুষের। অথচ মিডিয়াগোলো কিন্তু কোন দায় নেয়নি!
এমনই এক বাস্তবতার সৃষ্টি হয়েছে জনতা ব্যাংকের ঋণ গ্রহণকারী প্রতিষ্ঠান ক্রিসেন্ট গ্রুপের বিরুদ্ধে। এই গ্রুপটি নানা সয়ে জনতা ব্যাংকের কাছ থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা হস্তগত করেছে। জামানত যা আছে তা বিক্রি করলে হয়তো টাকা উঠবে। কিন্তু কে কিনবে এত টাকার সম্পত্তি। অর্থাৎ আখেরে সেই একই গল্প। দেশের মিডিয়াগুলোও এই নিয়ে ইদানিং প্রচারণা চালাচ্ছে চার হাত পায়ে। যদিও দুর্নীতির তালিকায় ব্যাংকিং খাতের চেয়ে উপরে যে সব খাত রয়েছে তাদের বিষয়ে এত প্রচারণা নেই। আবার জনতা ব্যাংক নিয়ে গত একবছর ধরে একের পর এক খবর প্রচার করে যাচ্ছে দেশের প্রধান প্রধান মিডিয়াগুলো। কিছুদিন প্রচারণার কেন্দ্রে ছিলো- এনোন গ্রুপ। যাদের কর্মচারীর সংখ্যা প্রায় ছাব্বিশ হাজার, রয়েছে দুইটা ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্ক। হিসেব নিকেশ করে জানা গেল এদের ভিত্তি যথেষ্ট মজবুত। উৎপাদনও ভালো কিন্তু কথা হলো মিডিয়া প্রভাবিত সিদ্ধান্ত কি আদৌ এই খাতে বাস্তবিক কোন সমাধান নিয়ে আসতে পারছে। হয়তো জনতা ব্যাংকের প্রশাসনও বিষয়গুলো নিয়ে তটস্থ। হলমার্কের মতো যদি ক্রিসেন্টের ব্যাপারেও মিডিয়ার প্রভাবে ভুল পদক্ষেপ নেয়া হয় তা কি আদৌ রাষ্ট্রের জন্য কল্যাণকর হবে?


ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম/এইএমএল


সর্বশেষ সংবাদ