বাংলা ফন্ট

‘জঙ্গিদের সহায়ক ছিল ভেড়ামারার তিন নারী’

02-07-2017
নিজস্ব প্রতিবেদক ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম

‘জঙ্গিদের সহায়ক ছিল ভেড়ামারার তিন নারী’
ঢাকা: জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় একটি বাড়িতে অভিযান চালিয়ে পুলিশ তিনজন নারীকে গ্রেফতার করে শনিবার।

পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের উপ-কমিশনার মহিবুল ইসলাম বলেছেন ভেড়ামারায় আটক হওয়া তিন নারী, সন্দেহভাজন জঙ্গিদের সহায়ক হিসেবে কাজ করছিলেন।

খান বলছেন "প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে তাদের স্বামীরাই জঙ্গি সংগঠনে জড়িত এবং তারা সংগঠনের সদস্য হিসেবে কাজ করতো"।

"স্বামীদের মাধ্যমে এখানে আসা,এবং তারা জঙ্গিবাদে দীক্ষা নিয়েছে। তাদের কাছে অস্ত্র এবং গোলাবারুদ পাওয়া গেছে। তাদের ভূমিকাটা জঙ্গিদের সহায়ক হিসেবে ছিলো"- বলছিলেন পুলিশের এই কর্মকর্তা।

বাংলাদেশে সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কয়েকজন নারীকে সন্দেহভাজন জঙ্গি আস্তানা থেকে আটক করা হয়েছে।

গ্রেফতার হওয়া এই নারীদের পরিচয়ও প্রকাশ করেছে পুলিশ।

খান বলেছেন, গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে রয়েছেন নিউ জেএমবির বর্তমান আমির বা প্রধান আইয়ুব বাচ্চুর স্ত্রী তিথি, সেকেন্ড ইন কমান্ড বা দ্বিতীয় শীর্ষ নেতা আরমান আলীর স্ত্রী সুমাইয়া। এবং অন্যজন টলি বেগম।

পুলিশ বলছে, টলি বেগমই ভেড়ামারা উপজেলার বামনপাড়া তালতলা এলাকায় বাড়িটি ভাড়া করেছিলো।

পুলিশের কর্মকর্তারা বলছেন, অভিযানের সময় ওই বাড়িটির ভেতর থেকে কিছু বোমা, গান পাউডার, পিস্তল এবং সুইসাইড ভেস্ট উদ্ধার করা হয়েছে।

পুলিশ বলছে বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দল ওই বাড়িটিতে ১০ কেজি বিস্ফোরক পেয়েছে যেগুলো তারা নিস্ত্রিয় করেছে।

ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম/এইচএমএল

সর্বশেষ সংবাদ