বাংলা ফন্ট

লোহাগড়ায় ঘোড়াদৌড় প্রতিযোগিতা

17-04-2017
নিজস্ব প্রতিবেদক ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম

লোহাগড়ায় ঘোড়াদৌড় প্রতিযোগিতা
নড়াইল: জেলার লোহাগড়া উপজেলার ব্রাহ্মণডাঙ্গায় বর্ষবরণ উপলক্ষে অনুষ্ঠিত হলো গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী ঘোড়া দৌড়া প্রতিযোগিতা। তিনদিনব্যাপী বৈশাখী মেলার সমাপণী দিনে ঐতিহ্যবাহী এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিতহয়। ব্রাহ্মণডাঙ্গা মেলা উদযাপন কমিটির আয়োজনে রোববার বিকেলে ঘোড়া এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।

প্রতিযোগিতা নড়াইল, যশোর, মাগুরাসহ পার্শ্ববর্তী এলাকার ২৫টি ঘোড়া অংশগ্রহণ করে। প্রায় দুই কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে পয়েন্ট ভিত্তিক এই প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়েছে নড়াইল সদর উপজেলার হৈদেরখো গ্রামের হাবিবুর রহমানের ঘোড়া। দ্বিতীয় হয়েছে লোহাগড়া উপজেলার নওখোলা গ্রামের আকাশ হোসেনের ঘোড়া, তৃতীয় হয়েছে একই গ্রামের লিটনের ঘোড়া এবং ৪র্থ হয়েছে সদর উপজেলার সাধুখালী গ্রামের হাসানের ঘোড়া। বিজয়ী ঘোড়ার মালিককে যথাক্রমে ৭ হাজার, ৫ হাজার, ৪ হাজার ও তিন হাজার টাকা পুরস্কার প্রদান করা হয়।

পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নোয়াগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম কালু, সাবেক চেয়ারম্যান নূরুজ্জামান নূরনবী, সম্মিলনী মাধ্যমিক বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি মোঃ হাদিয়ার রহমান, মেলা উদযাপন কমিটির সভাপতি মোঃ তায়জুল ইসলাম প্রমুখ।

এদিকে মেলার শেষ দিনে ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগিতা দেখার জন্য নড়াইলসহ পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন জেলা থেকে লাখো মানুষের সমাগম ঘটে।

স্থানীয় বাসিন্দা আশিক জানান, মেলাকে ঘিরে প্রতিটি বাড়িতে ১০-৩০ জন পর্যন্ত আত্মীয় স্বজনের আগমন ঘটেছে। এই মেলাকে ঘিরে ঈদের মতোই অত্র অঞ্চলে আনন্দ-উৎসব বিরাজ করে।
মেলা কমিটির সভাপতি তাইজুল ইসলাম জানান, সম্রাট আকবরের আমল থেকে ব্রাহ্মণডাঙ্গার ঐতিহ্যবাহী এই মেলা চলে আসছে। বাংলা নববর্ষকে বরণ এবং আনন্দ সকলের মাঝে ছড়িয়ে দিতে ব্রাহ্মণডাঙ্গায় বংশ পরম্পরায় মেলা বয়ে আসছে। সে ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে মেলার আয়োজন করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, মেলায় শতাধিক কসমেটিকস এর দোকান, শতাধিক মিষ্টির দোকান, দুই শতাধিক বেত, বাশ, কাঠ ও কুঠির শিল্পসহ সব মিলিয়ে প্রায় এক হাজার দোকানপাট বসেছে। ঘোড়া দৌড়ের পাশাপাশি রাতব্যাপী ভাবগানের আসর দর্শকদের মাতিয়ে তোলে।
এসময় বিভিন্ন শ্রেণীপেশার লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম/এইচএমএল

সর্বশেষ সংবাদ