বাংলা ফন্ট

সিএনজি চালকদের ধর্মঘট নিয়ে সমালোচনার ঝড়

18-11-2017
নিজস্ব প্রতিবেদক ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম

সিএনজি চালকদের ধর্মঘট নিয়ে সমালোচনার ঝড়
ঢাকা: উবার, পাঠাওয়ের মতো অ্যাপনির্ভর জনপ্রিয় পরিবহন সেবা বন্ধ করা এবং মেয়াদোত্তীর্ণ অটোরিকশা অপসারণ করে নতুন অটোরিকশা প্রতিস্থাপন করাসহ আট দফা দাবিতে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে ঢাকা ও চট্টগ্রাম জেলা সিএনজি অটোরিকশা শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। আগামী ২৭ নভেম্বর থেকে ঢাকা ও চট্টগ্রামে ৪৮ ঘণ্টা এই ধর্মঘট পালন করা হবে। এদিকে সিএনজি চালকদের এই ধর্মঘটের সিদ্ধান্তে সমালোচনার ঝড় উঠেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।
 
ছাত্র, শিক্ষক, সাংবাদিক, অভিনেতা, ব্যবসায়ী, নাট্যকর্মী নানা পেশার মানুষ সিএনজি চালকদের দৌরাত্মে হওয়া ভয়াবহ অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরেছেন ফেসবুকে।
 
মডেল অভিনেতা অন্তু করিম ফেসবুকে লেখেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বানাতে সবাই চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে... তাহলে উবার/পাঠাও এর মতো ডিজিটাল আশীর্বাদ বন্ধে সি,এন,জি ওয়ালারা উস্কে যাচ্ছে কিভাবে? তাদের কয়েকটা দাবি শুনে "মগের মুল্লুক" এর কথা মনে পরে গেলো।
 
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও নাট্যকর্মী চৈতালি হালদার চৈতী ফেসবুকে মন্তব্য করেন, ‘আহ.. শান্তি, সিএনজি বন্ধ করে দেওয়া উচিত ঢাকায়...ডাকাত,আর জ্যামের কারণ। আর কি জমিদারি ভাব এক এক জনের..মাগো...যাত্রীরা যেন জিম্মি ছিল ওদের (সিএনজিওয়ালাদের) কাছে ।’
 
অভিনেতা ও পরিচালক রওনক হাসান লেখেন, সিএনজি মালিক, ড্রাইভার আপনারা উবার পাঠাও বন্ধের আন্দোলন ছাইড়া নিজেরা লাইনে আসেন। সঠিক মিটার বসান। যাত্রী যেখানে যেতে চায় সেখানে নিয়ে যান তাহলেই হবে। উবার, পাঠাও বন্ধ হলে আমিও এর প্রতিবাদে সামিল হবো। আজো মনে আছে সিএনজি ড্রাইভারদের উদ্ধত আচরণ আর যন্ত্রণায় রাগে দুঃখে দশ বছর আগে সামর্থ্য না থাকা স্বত্বেও গাড়ি কিনেছিলাম।

ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম/এইএমএল




সর্বশেষ সংবাদ