বাংলা ফন্ট

তামিম চৌধুরীর মরদেহ ফেরত চায় কানাডীয় হাইকমিশন

17-04-2017
নিজস্ব প্রতিবেদক ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম

 তামিম চৌধুরীর মরদেহ ফেরত চায় কানাডীয় হাইকমিশন
ঢাকা: নারায়ণগঞ্জে জঙ্গিবিরোধী অভিযানে নিহত নব্য জেএমবি নেতা বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত তামিম চৌধুরীর মরদেহ তার কানাডাপ্রবাসী পরিবারকে ফেরত দিতে কানাডীয় হাইকমিশন সক্রিয় হয়েছে বলে জানা গেছে।

গত বছরের ১৫ ডিসেম্বর তামিমের লাশ ঢাকার জুরাইন কবরস্থানে দাফন করে আঞ্জুমান মুফিদুল ইসলাম।  তার বাবার নাম শফিক আহমেদ চৌধুরী। পৈতৃক বাড়ি সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলার বড়গ্রাম ফাদিমাপুরে। ১৯৮৬ সালে তামিমের জন্ম হয়।

এরপর কানাডীয় হাইকমিশনের পক্ষ থেকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে একাধিক চিঠি লেখা হলেও কোনো সাড়া পায়নি তারা। এমনকি সরকারের কাছে তারা ব্যাখ্যা চেয়েছে যে, কেন তামিমের মরদেহ ফেরত দেওয়া হচ্ছে না।

অনেকবার অনুরোধ করার পরো তামিম চৌধুরীর ব্যাপারে কেন কোনো তথ্য দেওয়া হয়নি, সে ব্যাপারেও ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে ঢাকার কানাডার হাইকমিশন।

ওই চিঠিতে বলা হয়, গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে হাইকমিশন জানতে পেরেছে, তামিম চৌধুরী নামে কানাডার একজন নাগরিক পুলিশের অভিযানে নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া তার লাশ দাফন করার জন্য আঞ্জুমান মুফিদুল ইসলাম নামে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে দেওয়া হয়েছে বলে তারা জানতে পেরেছে। এরপর থেকে নানাভাবে তারা তামিমের বিষয়ে তথ্য চেয়েছে। কিন্তু স্বরাষ্ট্র বা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় হাইকমিশনকে কিছুই জানায়নি।

চিঠিতে আরো বলা হয়, এর আগেও হাইকমিশন তামিমের পুরো পরিচয় নিশ্চিত করতে তথ্য দিয়ে সহায়তা করার জন্য বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষকে বারবার অনুরোধ জানিয়েছিল। একই সঙ্গে তামিমের মরদেহের কী হবে, সে ব্যাপারে বাংলাদেশের সিদ্ধান্ত জানতে চেয়েছিল হাইকমিশন। এসব বিষয়ে মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে ফোনালাপ হয়েছে। কিন্তু তারপরও হাইকিমশনকে কিছুই জানানো হয়নি।

জানা গেছে, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে কানাডার হাইকমিশনের এই চিঠি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, তামিম চৌধুরী নিহত হওয়ার আগেও বেশ কয়েক দফা কানাডার সরকার তামিমের বিষয়ে তথ্য চেয়ে চিঠি দিয়েছিল।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান রবিবার একটি গণমাধ্যমকে বলেন, ‘তামিম নিহত হওয়ার পর পত্রিকায় ছবি দিয়ে তার লাশ পরিবারকে নিতে বলা হয়েছে। যখন কেউ নেয়নি, আমরা আঞ্জুমান মুফিদুলে লাশ হস্তান্তর করেছি। এখন তাদের যদি প্রয়োজন হয়, সেখান থেকে নিয়ে যাবে, এটা নিয়ে এত ব্যাখ্যার কী আছে?’

ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম/এইচএমএল

সর্বশেষ সংবাদ