বাংলা ফন্ট

যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

11-04-2017
নিজস্ব প্রতিনিধি ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম

যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা
ঢাকা: কেরানীগঞ্জে আগানগর ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক নাহিদ হোসেন গাজীকে (৪০) কুপিয়ে হত্যা করেছে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা।

সোমবার দিনগত রাত ৩টার দিকে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধারের পর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা দেন।

স্থানীয়রা জানান, ছুরিকাহত অবস্থায় যুবলীগ নেতা গাজী সোমবার রাত ৩টার দিকে দৌড়ে এসে আগানগর ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর শাহ খুশি’র বাড়ির গেটে পড়ে যান।

তার কিছুটা দূরেই গাজীর নিজের বাড়ি। এসময় তার ডাক শুনে বাড়ির দারোয়ান ও প্রতিবেশীরা এসে ধরাধরি করে একটি ভ্যানে করে প্রথমে মিটফোর্ড হাসপাতাল, পরে সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ওসি মনিরুল ইসলাম বলেন, গাজীর নাভীর নিচে ও বাম পাশে দুটি ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তবে কোথায় তার উপর হামলা করা হয়েছে সেটা এখনো জানা যায়নি।

যেখানে গাজী পড়ে ছিল সেখান থেকে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন ও ৩ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আমরা জানতে পেরেছি, গাজী গাঁজার নেশায় আসক্ত ছিলেন। নেশা করে রাত-বিরাতে হাঁটাহাটি করতেন।

মঙ্গলবার সকালে কেরানীগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মোবারক হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী গাজীর প্রতিবেশী যুবক শাহিন বলেন, লোকজনের হইচই শুনে রাত ৩টার সময় বাসা থেকে বেরিয়ে চেয়ারম্যানের বাড়ির সামনের রাস্তায় আসি।

এসময় গাজী ভাইয়ের জ্ঞান ছিল। তার বাড়িতে খবর দেয়ার সঙ্গে সঙ্গে তাকে ধরাধরি করে একটি ভ্যানে করে হাসপাতালে পাঠাই।

জানা যায়, নাহিদ হোসেন গাজী যুবলীগের রাজনীতির পাশাপাশি রিকশা গ্যারেজের ব্যবসা করতেন। তার বাবার নাম হাজী মতিউর রহমান। আগানগর ইউনিয়নে তার বাড়ি।

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা যুবলীগের সভাপতি মাহমুদ আলম বলেন, নিহত গাজী আগানগর ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ছিলেন।

আমরা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি এবং অবিলম্বের ঘাতকদের চিহ্নিত করে দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবি জানাচ্ছি।

ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম/এইচএমএল

সর্বশেষ সংবাদ