বাংলা ফন্ট

প্রচারাভিযান: সেলফি যেন 'কিলফি' না হয়

20-11-2017
নিজস্ব প্রতিবেদক ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম

  প্রচারাভিযান: সেলফি যেন 'কিলফি' না হয়
ঢাকা: ভারতের কর্ণাটক রাজ্যে কর্তৃপক্ষ সেলফি তোলার বিপদ ব্যাপারে লোকজনকে সতর্ক করতে এক প্রচারাভিযান চালাচ্ছে। সম্প্রতি সেলফি তুলতে গিয়ে চারজন ছাত্রের মৃত্যুর পর তারা এই উদ্যোগ নিয়েছেন।

সেপ্টেম্বর মাসে ২০-২৫ জন কলেজ ছাত্র বেঙ্গালুরু শহরের ৩০ কিলোমিটার দূরের রামাগোন্ডলুতে একটি হনুমান মন্দিরে বেড়াতে যায়।

সেদিন দুপুরে তারা মন্দিরের পুকুরে স্নান করতে নামে। "তারা সেখানে আনন্দ-উল্লাস করছিল, সেলফি তুলছিল" - বলেন স্থানীয় একজন দোকানদার মঞ্জুনাথ।

সেই সময়ই ছাত্রদের একজন সেই ১৫ ফুট গভীর পুকুরে ডুবে মারা যায়।

তাদের তোলা সেলফিগুলোর একটিতে দেখা যায়, ছেলেদের সবাই তাকিয়ে আছে ক্যামেরার দিকে, তার তাদের ঠিক পেছনেই ডুবন্ত ছেলেটির মাথা দেখা যাচ্ছে পুকুরের পানিতে - কিন্তু কেউ সেদিকে দেখছে না।

ঘন্টাখানেক পর বাকিদের খেয়াল হয় যে তাদের মধ্যে একজন নিখোঁজ। এর আরো দু'ঘন্টা পর পুলিশ ও স্থানীয় লোকরা এসে তার মৃতদেহ পুকুর থেকে ওঠায়।

কয়েক সপ্তাহ পরই আরেকটি দু:খজনক ঘটনা ঘটে ওই মন্দির থেকে ঘন্টাখানেকের পখ দূরে।

রেললাইনের ওপর শুয়ে সেলফি তুলতে গিয়ে ট্রেনে চাপা পড়ে মারা যায় তিনজন তরুণ।

স্থানীয় লোকেরা জানান, পুরো জায়গাটি জুড়ে তাদের ছিন্নভিন্ন দেহের বিভিন্ন অংশ ছড়িয়ে ছিল। সম্ভবত তারা রেললাইনের ওপর শুয়ে থাকার জন্যেই দেখতে পায় নি যে ট্রেন আসছে।

এ দুটি ঘটনার পর কর্ণাটক রাজ্যের সরকার বিশেষ করে তরুণরা সেলফি তুলতে গিয়ে কি বিপদ হতে পারে সে ব্যাপারে সচেতন করার উদ্যোগ নিয়েছে।

তারা বলছেন, বিপজ্জনক জায়গায় সেলফি তুলতে গেলে তা 'কিলফি'তে পরিণত হতে পারে।

এজন্য তারা বিভিন্ন টুরিস্ট স্পটে নতুন নতুন সাইনবোর্ড লাগাচ্ছেন। সামাজিক মাধ্যমেও তারা প্রচার চালাচ্ছেন।

ভারতে ১১০ কোটিরও বেশি লোক মোবাইল ফোন গ্রাহক। স্মাটফোন ব্যবহার করে ৩০ কোটি লোক।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আসক্ত তরুণরা সেলফি তোলার জন্য বেপরোয়া হয়ে নানা রকম ঝুঁকি নেয়।

সাম্প্রতিক একটি জরিপে দেখা গেছে, পৃথিবীর অন্য যে কোন দেশের চাইতে ভারতে সেলফি তুলতে গিয়ে মৃত্যুর ঘটনা সবচেয়ে বেশি ঘটে থাকে।

এই জরিপে দেখা যায় ২০১৪-র মার্চ থেকে ২০১৬-র সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সেলফি তুলতে গিয়ে সারা বিশ্বে মৃত্যু ঘটেছে ১২৭টি , এর মধ্যে ভারতেই ঘটেছে ৭৬টি আর এদের অধিকাংশই তরুণ।

সেলফি তুলতে গিয়ে এসব মৃত্যু হয়েছে ট্রেনে কাটা পড়ে, উঁচু জায়গা থেকে পড়ে গিয়ে, পানিতে ডুবে, বা সমুদ্রে ভেসে গিয়ে।

উত্তর ভারতের মোরাদাবাদ শহরে এবছর জুন মাসে পুলিশ হুঁশিয়ারি দেয় যে রেললাইন বা ফ্লাইওভারের ওপর, বা বাসের ওপর বসে কেউ সেলফি তুলতে গেলে তাকে জেলে পাঠানো হবে।

মুম্বাই শহরে গত বছর সেলফি তুলতে গিয়ে ১৮ বছরের এক তরুণী সমুদ্রে ডুবে মারা যায়। এর পর সেখানকার টুরিস্ট স্পটগুলোয় 'নো সেলফি' সাইনবোর্ড লাগানো হয়েছে।

অবশ্য কর্মকর্তারা স্বীকার করেন, সেলফি তুলতে গিয়ে বিপদ যে কোনো জায়গাতেই হতে পারে তাই কোন জায়গাকে 'নো সেলফি' জোন করা হবে তা ঠিক করা কঠিন।

ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম/এইএমএল

সর্বশেষ সংবাদ