বাংলা ফন্ট

রাহুল গান্ধীর বিয়ের খবরে তোলপাড়!

07-05-2018
নিজস্ব প্রতিবেদক ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম

 রাহুল গান্ধীর বিয়ের খবরে তোলপাড়!
কলকাতা: ভারতের জাতীয় কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী বিয়ে করছেন, এমন প্রচার কয়েক দিন ধরে ছড়িয়ে পড়ে ভারতের বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। এটা নিয়ে রীতিমতো হৈহৈ শুরু হয়ে যায় চারদিকে। তবে সম্ভাব্য পাত্রী হিসেবে যার নাম সারা ভারতবর্ষে এখন প্রচার হচ্ছে, সেই কংগ্রেস বিধায়ক অদিতি সিংহ অবশ্য সাফ বলে দিয়েছেন, ‘পুরোটাই গুজব। রাহুল গান্ধী আমার দাদা।’ অদিতি সিংয়ের কথায়,  ‘এই ধরনের গুজবে আমি ব্যথিত। রাহুলজি আমার রাখিভাই।  রাহুল গান্ধীর সঙ্গে বিয়ের প্রচার স্রেফ গুজব বলে উড়িয়ে দিলেন উত্তর প্রদেশের রায়বেরিলি সদরের কংগ্রেস বিধায়ক অদিতি সিংহ।

অদিতি বলেন, ‘এ ধরনের গুজব রটায় আমি দুঃখ পেয়েছি। রাহুলজি আমার বড় ভাইয়ের মতো। আমি তাকে রাখি পরাই। যারা এ ধরনের গুজব ছড়াচ্ছে, তারা আমার ও রাহুল গান্ধীর ভাবমূর্তি ক্ষতি করার চেষ্টা করছে। কর্ণাটক বিধানসভা নির্বাচনের আগে আমার সঙ্গে রাহুল গান্ধীর বিয়ের মিথ্যা প্রচার শুরু করা হয়েছে। কর্ণাটকের ভোট প্রচারে কংগ্রেস নেতৃত্ব ও কর্মীদের বিভ্রান্ত করতেই এই ধরনের মিথ্যা প্রচার চালানো হচ্ছে।’

তবে ফেসবুক, টুইটার, হোয়াটসঅ্যাপে অবশ্য ঘোরাফেরা করছে রাহুল ও অদিতির ছবি। সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গেও রাহুল ও অদিতির ছবি রয়েছে।

অনেকের প্রশ্ন, কে এই অদিতি? কী তার পরিচয়? রাহুল গান্ধীর ছোট বোন, ভারতবাসীর কাছে যিনি প্রিয়দর্শিনী ও প্রিয় নেত্রী ইন্দিরা গান্ধীর আদরের প্রিয় নাতনি ও সাক্ষাৎ প্রতিমূর্তি প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর খুব ঘনিষ্ঠজন রায়বেরেলির বিধায়ক অদিতি সিং। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ডিউক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ম্যানেজমেন্টের ডিগ্রি লাভ করেছেন তিনি। ২৯ বছরের অদিতি সিং রায়বেরেলির পাঁচবারের বিধায়ক অখিলেশ সিংয়ের কন্যা। ৯০,০০০ ভোটের ব্যবধানে প্রথম বিধায়ক নির্বাচিত হয়েছেন অদিতি সিং।

আসলে এই জল্পনার পিছনে দলের অবিবাহিত সভাপতি রাহুল গান্ধীর সঙ্গে অদিতি সিংহের কয়েকটি ছবি। শুধু রাহুলই নন, দলের প্রাক্তন প্রধান সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গেও রয়েছে অদিতির ছবি। আর সেই সব ছবি পোস্টও করেছেন অদিতি। সেই সব ছবিই ভাইরাল হয়েছে নতুন নতুন ক্যাপশানের সঙ্গে। আর তাতেই পরিবেশিত হয়েছে খবর— অবেশেষে জীবনসঙ্গিনী খুঁজে পেয়েছেন রাহুল গান্ধী।

রাহুল গান্ধীকে নিয়ে এমন জল্পনা এই প্রথম নয়। আগেও এমন অনেকের সম্পর্কে শোনা গেছে রাহুলের জুটি বাঁধার কাহিনি। কিন্তু কোনও কাহিনিই সত্য হয়নি। এখনও পর্যন্ত নিজের বিবাহ পরিকল্পনা নিয়ে কোনও দিনই স্পষ্ট উত্তর দেননি কংগ্রেসের যুবরাজ। সভাপতি হওয়ার আগে একটি অনুষ্ঠানে শেষবার তার বিয়ে প্রসঙ্গে ওঠা প্রশ্নের জবাবে রাহুল বলেছিলেন, তিনি কপালে বিশ্বাস করেন। আর সেই নিয়তির হাতেই ছেড়ে দিয়েছেন তার বিবাহ-সম্ভাবনা।

এবারের জল্পনাতেও জল ঢেলে দিয়েছেন অদিতি সিংহ। তিনি স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিয়েছেন— এ সমস্তই গুজব। তিনি আজ ০৬ মে ২০১৮ রোববার টুইট করে লিখেছেন গত কাল থেকে আমি খুব জ্বালাতনে ভুগছি, সোশ্যাল মিডিয়ায় আমার আর রাহুল গান্ধীজীর বিয়ে নিয়ে লাগাতার মিথ্যা প্রচার চলছে। রাহুল গান্ধী আমার রাখি-ভাই। সবটাই অপবাদ। এই অপবাদ যাঁরা রটাচ্ছেন তারা থামুন।

এখানেই থামেননি অদিতি। তিনি সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে তাঁর পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিয়ে তোলা ছবিও টুইট করেছেন। আর তার সঙ্গে লিখেছেন ‘আমাদের অনেক পুরনো পারিবারিক সম্পর্ক। সোশ্যাল মিডিয়ায় যে সব ছবি ছড়াচ্ছে তা সেই সম্পর্কের অংশ মাত্র।’

৬ মে  অদিতি টুইট করে নিজের বক্তব্য প্রকাশ করলেও, কিন্তু থামেনি সোশ্যাল মিডিয়া। ফেসবুক থেকে হোয়াটসঅ্যাপ সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ছে ২৯ বছরের বিধায়ক অদিতির সঙ্গে ৪৭ বছরের রাহুলের নানা ছবি আর মনের মাধুরী মাখা গল্প।

রাহুল গান্ধী ও অদিতি সিংহের পরিবারের লোকজনের ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর থেকেই তাদের মধ্যে বিয়ের জল্পনা শুরু হয়। অনেকে বলতে শুরু করে দেন, ছেলের বিয়ের দিন ঠিক করার জন্য অদিতির পরিবারের লোকজনের সঙ্গে কথা বলছেন সোনিয়া গান্ধী। তবে এই বিষয়ে অদিতি সিংহ টুইট করে জানিয়েছেন, সম্প্রতি ইউপিএ চেয়ারপারসন সোনিয়া গান্ধী রায়বেরিলি সফরে এলে ওই ছবিগুলো তোলা হয়। সেই ছবিকে কেন্দ্র করেই স্রেফ গুজব রটানো হচ্ছে।

কংগ্রেস বিধায়ক অদিতি সিংহর বাবা রায়বেরিলি সদর কেন্দ্রের পাঁচবারের কংগ্রেস বিধায়ক ছিলেন। ২০১৭ সাল থেকে রাজনীতিতে আসেন অদিতি সিংহ। দিল্লি ও যুক্তরাষ্ট্রের মিসৌরিতে পড়াশোনা করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ডিউক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ম্যানেজমেন্টে ডিগ্রি করা অদিতি কংগ্রেস সভাপতি রাহুলের বোন প্রিয়াঙ্কা ভদ্রর ঘনিষ্ঠ বলেই পরিচিত।

ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম/এইএমএল







সর্বশেষ সংবাদ