বাংলা ফন্ট

গীতা পাঠে পুরস্কার পাওয়া মুসলিম শিশুর বিরুদ্ধে ফতোয়া

04-01-2018
নিজস্ব প্রতিবেদক ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম

গীতা পাঠে পুরস্কার পাওয়া মুসলিম শিশুর বিরুদ্ধে ফতোয়া

ঢাকা: ভারতের ভাগবত গীতা পাঠ করে দ্বিতীয় পুরস্কার পাওয়া আলিয়া খানের  বিরুদ্ধে ফতোয়া দিল দেওবন্দ দারুল উলুম।

যদিও আলিয়া জানিয়েছে, সে ফতোয়া মানবে না, প্রতিটি ধর্মকে সে সমান শ্রদ্ধা করে বলে গীতাপাঠ চালিয়ে যাবে।

গত শনিবার উত্তরপ্রদেশ সরকার আয়োজিত বাল গঙ্গাধর তিলকের ১০১-তম জন্মবার্ষিকী পালনের অনুষ্ঠানে ভাগবত গীতা পাঠ করে দ্বিতীয় পুরস্কার পায় ১৫ বছরে আলিয়া খান। ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফডনবিশ।

গত অক্টোবরে দেওয়ালি উপলক্ষ্যে ভগবান রামকে নিবেদন করে আরতি করায় বারাণসীর বেশ কিছু মুসলিম মহিলাকে অ-মুসলিম ঘোষণা করেছিল দেওবন্দ। দেওবন্দের উলেমা মহম্মদ শফিক খান জানিয়ে দেন, কোনও মুসলিম আল্লাহ বাদে অন্য কারও বন্দনা করলে সে আর মুসলিম থাকে না। ইসলামে এ ধরনের লোকজনের স্বীকৃতি নেই। তারও আগে মুসলিমদের সোস্যাল মিডিয়ায় ছবি পোস্ট করা নিষিদ্ধ ঘোষণা করে ফতোয়া দেয় দেওবন্দ। তাদের তরফে নির্দেশ জারি করে দারুল ইফতা জানায়, মুসলিম মহিলা ও পুরুষরা যেন নিজেদের বা পরিবারের সদস্যদের ছবি সোস্যাল মিডিয়ায় না দেন, কারণ তা ইসলাম-বিরোধী।

দারুল ইফতার ফতোয়া শাখার কাছে লিখিত প্রশ্ন পাঠিয়ে এক ব্যক্তি জানতে চান, ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপে নিজের বা স্ত্রীর ছবি পোস্ট করা ইসলামসম্মত কিনা। তখনই এই অভিমত জানায় তারা। সূত্র: এনডিটিভি, এবিপি আনন্দ

ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম/এইএমএল










সর্বশেষ সংবাদ