বাংলা ফন্ট

সিকতা কাজল-এর সিরিজ কবিতা: বোধ

05-03-2017

সিকতা কাজল-এর সিরিজ কবিতা: বোধ

বোধ -৩
রোদের ঢেউ বাতাসে রোমন্থন করে চোখের ওঠানামা। বালক বৃক্ষ স্মৃতির উঠোন থেকে
কুড়িয়ে আনে কিছু অর্থবোধক শব্দমালা। প্রার্থনার দরজায় ধন্বন্তরী ভিটার জায়নামাজ।
প্রত্নস্মৃতি বেহূলার কাহিনী..বৈধব্যের দেবালয়ে সমুদ্র, নক্ষত্র অবিরত লখিন্দরের প্রাণবীজ
আহরণ করে। সারারাত জেগে থেকে বেহুলা জোসনায় ভিজে দৃষ্টির প্রদীপ দেখে। লখিন্দরের জীবন সাইরেন বেজে ওঠে বসন্ত দিনে। চাঁদের শরীর অস্পৃশ্য রমনীর মত পেীরাণিক সংকেত দেয়। প্রত্নলিপির পাঠ দিনক্ষণহীন মৃত্তিকার ফসল। জাগ্রত সত্তা থেকে বেড়িয়ে আসে বেহুলার ভেলায় কাটানো কিছু সময়। এসবইস বোধের আঙ্গিনায় লুটোপুটি খায়।

বোধ-৪
বয়স বাড়ছে, বাড়ছে বোধের উচ্চতাও। ঘর থেকে ঘর--- পথ থেকে পথ ,সময় থেকে সময়... এসব অসম্পূর্ণ গল্প অনুভূতির আঘাতে আহত, জলের মত বাষ্প হয়ে আকাশের দিকে ছুটে যায় । চোখের মধ্যে গোটা পৃথিবী। স্মৃতির মধ্যে মস্ত জীবন।
বোধের মধ্যে মহাকাল.....।

বোধ-৫

মিলনের প্রগাঢ় আকাঙ্খা শব্দ অংকিত চিত্রলিপির মধ্যে সর্বভুক বেদনা।
নীলজলের ক্যানভাসে পরস্পর আলিঙ্গনাবদ্ধ।
অথচ সঙ্গমহীনতা আবরণের ছদ্মবেশে দাঁড়িয়ে
আছে মহাকাল।

বোধ -৬

সারারাত জেগে থেকে বেহুলা জোসনায় ভিজে -ভিজে দৃষ্টির প্রদিপ দেখে।
লখিন্দরের জীবন সাইরেন বেজে ওঠে বসন্তদিনে। চাঁদের শরীর অস্পৃশ্য রমনীর মত পৌরাণিক সংকেত দেয়। প্রত্নলিপির পাঠ দিনক্ষণহীন মৃত্তিকার ফসল। জাগ্রত সত্তা থেকে বেড়িয়ে আসে বেহুলার ভেলায় কাটানো কিছু সময়। এসবি বোধের আঙ্গিনায় লুটোপুটি খায় ভোরের আলোয় ...

সর্বশেষ সংবাদ