বাংলা ফন্ট

সুপ্রীম কো‌র্টের সাম‌নে ন্যা‌য়ের ভাস্কর্য বিতর্ক

07-02-2017
সরদার ‍আমিন

সুপ্রীম কো‌র্টের সাম‌নে ন্যা‌য়ের ভাস্কর্য বিতর্ক হেফাজত বল‌ছে এটা গ্রীক দেবী থে‌মিস এ মূর্তি। এটা সরা‌তে হ‌বে।
অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, সুলতানা কামাল, এটর্নি জেনা‌রেল, ঘাতক দালাল নির্মূল ক‌মি‌টি, গণজাগরণ মঞ্চ বল‌ছে, এটা বিশ্বব্যাপী ন্যা‌য়ের প্রতীক। চোখ বাধা মা‌নে বিচার পক্ষপা‌তিত্ব কর‌বে না, পাল্লা মা‌নে জা‌স্টিস সক‌লের জন্য সমান, ত‌লোয়ার মা‌নে দণ্ড দান। জাপা‌নে চু‌য়ো বিশ্ব‌বিদ্যাল‌য়ের সাম‌নের ভাস্কর্য ছ‌বি‌তে ও বাংলা‌দে‌শে যা নি‌য়ে বিতর্ক।
অা‌মে‌রিকার রাষ্ট্রীয় বিচারালয় কেবল নয় গুরুত্বপূর্ণ ডক্যু‌মে‌ন্টের কভার পৃষ্ঠায় এরকম ছ‌বি।

গণতন্ত্র গ্রীক ও রো‌মের অবদান, অ‌নেক অাইন গ্রীক ও রো‌মের থে‌কে অাসা। কেউ বল‌ব্নো অ্যা‌রি‌স্টোটল অসৎ অাইন প্র‌ণেতা দার্শ‌নিক। ধর্ম সেসব‌কে গ্রাস ক‌রে‌নি। ধর্ম কেবল অ‌লৌ‌কিক শ‌ক্তির কা‌ছে আত্মসমর্পণ ক‌রি‌য়ে‌ছে ত‌বে সব কিছু সেই শ‌ক্তির কথা ব‌লেই গ্রীক সভ্যতায় নিব‌ন্ধিত হ‌য়ে‌ছিল। যেমন থে‌মিস‌কে গড ডেল‌ফির মাধ্য‌মে নী‌তি কথা পাঠা‌তেন।
প্রধান দেবতা জেউস এর ২য় স্ত্রী থে‌মিস। তি‌নি অাকাশ ও স্ব‌র্গের সৃ‌ষ্টির দেবতা ইউ‌রেনাস ও দু‌নিয়া সৃ‌ষ্টির দেবতা গে‌য়ির কন্যা। তি‌নি প্রাকৃ‌তিক অাইন ও মোরাল ল মা‌নে নৈ‌তিক অাই‌নের দেবী। অ‌লি‌ম্পিয়া পর্ব‌তে তার বাস ব‌লে তখন বিশ্বাস কর‌তো। এরকম ভাবনা ছাড়া মানু‌ষের কা‌ছে বিকল্প ছিল না, যা দি‌য়ে তারা এক‌টি গৌর‌বের সভ্যতার সৃ‌ষ্টি ক‌রে‌ছি‌লেন।
এখন লো‌কে দেব দে‌বির বিশ্বাস ক‌রে না। সিম্বল হি‌সে‌বে তার ভাস্কর্য দু‌নিয়াব্যাপী ব্যবহার ক‌রে। যারা গ্রীক গণতন্ত্র (বর্তমা‌ন প্রচ‌লিত গণতন্ত্র) মা‌নে তারা এ সিম্বল‌কে মান‌বে না কেন? এ সিম্ব‌লের জন্য কোন অাইন লেখা হয়‌নি। কিন্তু সিম্বল‌টি চমৎকার। এরকম ন্যায়‌নিষ্ট সিম্বল প্রচ‌লিত ধ‌র্মে নেই।

নারী ভাস্কর্য হ‌লেই তা হারাম হ‌বে কেন? নারী পুরুষের মত পূর্নাঙ্গ মানুষ। তা‌কে এক তিল হেয় কর‌লে তার (মা, বোন, কন্যা, স্ত্রী প্রমুখ) জীব‌নের প্র‌তি সি‌রিয়াস অন্যায় হয়। দেবতার জন্য সন্তা‌নের কল্লা কে‌টে দেবার মত অন্যায়।

অ‌নেক স্থা‌নে জা‌তির পিতার বা জা‌তির বীর‌দের ভাস্কর্য থা‌কে জা‌তি‌কে প্রেরণা দি‌তে। ধর্ম, সা‌হিত্য, নী‌তি, শিল্প বহু কিছু মানুষ‌কে উচ্চতম সভ্যতার দি‌কে অাহবান ক‌রে ও নিয়ন্ত্রণ ক‌রে। কেবল ধর্ম কিতাব দি‌য়ে কোন জা‌তি ও দেশ চল‌তে পার‌ছে না। ঐতিহা‌সিক অাইন কানুন কোন ধ‌র্মের শত্রুতার জন্য না, মানুষ নিষ্পাপ মন থে‌কে তা ক‌রে‌ছে মানু‌ষের অ‌ধিকতর মঙ্গ‌লের জন্য। ‌সেখা‌নে যা বে‌শি মঙ্গলকর তা প্রাধান্য পা‌বেই। এসব মানু‌ষের সেরা জ্ঞা‌নের রেকর্ড।

দু‌নিয়া‌তে অাব্রাহা‌মিক ধ‌র্মের অা‌গে বাগদা‌দের হাম্মুরা‌বি প্রথম অাইন ক‌রেন। সেই থে‌কে যাত্রা শুরু। জ‌মির অ‌নেক অাইন এখ‌নো হাম্মুরা‌বির থে‌কে অাসা। গ্রীক ও রো‌মে তার উৎকর্ষ সা‌ধিত হয়। যা দি‌য়ে দু‌নিয়া এক‌বিশ্ব হ‌চ্ছে। হেফাজত সব‌কিছু গ্রাস করার দি‌কে অাগা‌চ্ছে যা দেশ‌কে দু‌নিয়া থে‌কে অসভ্যতা গর্তের দি‌কে নি‌য়ে যা‌বে। সেজন্য তা‌দের এমন অাস্ফালন‌কে অার সহ্য করা উ‌চিৎ না। হেফাজত থাক‌লে দেশ অাগা‌বে না। অাধু‌নিক ন্যায় ধর্ম বি‌রোধী না বরং ধ‌র্মের বর্ণনা থে‌কে অা‌রো বিক‌শিত।

‌হেফাজ‌তিরা তো পার‌লে নারী নেতৃত্ব পা‌ল্টে ফে‌লে।

ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর.কম/এইচএমএল