বাংলা ফন্ট

আমার সংশয়

21-02-2018
সমরজিৎ সিংহ

আমার সংশয়
বাংলা ভাষার অস্তিত্ব গভীর সংকটে  । এরকমই এক ভবিষ্যতবাণী করা হয়েছে সম্প্রতি  । ২১ ফেব্রুয়ারি, মাতৃভাষা দিবসের প্রাক্কালে, এই সংবাদ আমাকে, সন্দেহ নেই, বিচলিত করেছে  । 
এই পৃথিবীর কত জনজাতির মাতৃভাষা হারিয়ে গেছে, তার ইয়ত্তা নেই  । আমার নিজের মাতৃভাষা, বিষ্ণুপ্রিয়া মনিপুরী ভাষাটিও, টিকে আছে ধুকপুক করতে করতে  । এই ভাষাটা এক সংখ্যালঘু জাতির, যার জনসংখ্যা চার লাখ হবে কি না,  সন্দেহ আছে  । এর লিখিত রূপ বলতে, কবিতা, গল্প বা গান  । ভারতের অঙ্গরাজ্য ত্রিপুরায় এই ভাষায় স্কুলে পড়ানো হয়  । আসামেও তা হচ্ছে, বলে, শুনেছি  । স্কুলে পড়ানো হলেই সে ভাষা জীবিত হবে, এমন কোনো গ্যারান্টি নেই  । সংস্কৃত ভাষা তার উদাহরণ  ।
এত কথা বললাম, বাংলা ভাষার অস্তিত্ব সংকটের কথা শুনে  । 
তার আগে, বলে রাখা ভাল, এই  বাংলা ভাষার জন্য একটি রাষ্ট্রকে জন্ম হতে দেখেছি চোখের সামনে  । সেই রাষ্ট্র বাংলাদেশ  । ২১ ফেব্রুয়ারির তাৎপর্যও লুকিয়ে আছে সেখানে  । মাতৃভাষার জন্য প্রাণ দেওয়া, তাকে কেন্দ্র করে একটি রাষ্ট্রের জন্ম গত শতকের এক যুগান্তকারী ঘটনা  ।
তারপরও বাংলা ভাষা অস্তিত্বের সংকটে  ? ভাবা যায়  ? 
তবু ভাবতে হচ্ছে  । কেন না, বাংলাদেশ এবং ভারতে যেসব ঘটনা ঘটেছে বা ঘটছে, তা এই সম্ভাবনাকে উজ্জ্বল করে তুলছে  ।
বাংলাদেশের পাঠ্যসূচি থেকে বঙ্কিমচন্দ্র, রবীন্দ্রনাথ যখন বাদ  পড়ে যাচ্ছেন বা তাদের লেখা রাখা হচ্ছে না ধর্মের অজুহাতে, তখনই প্রশ্ন জাগে, বাংলা ভাষাকে অনাথ করে তোলার পেছনে কোনো ষড়যন্ত্র নেই তো  ? 
ভারতে এই ষড়যন্ত্র বহুকালের  । হিন্দিকে চাপিয়ে দিতে গিয়ে, বাংলা ভাষাকে কোণঠাসা করা হচ্ছে  । 
আমরা তার প্রতিবাদ কতটা করি  ? ইংরেজি আর হিন্দির মোহে পড়ে আমরা অবহেলা করছি না তো নিজের মাতৃভাষাকে  ?

সৌজন্যে: সাপ্তাহিক ধাবমান

সর্বশেষ সংবাদ